সাহস থাকলে গ্রেফতার করুন, মমতাকে অমিত শাহ

এবং ডেস্ক : ভারতের পশ্চিমবঙ্গের তিন জায়গায় নির্বাচনি সভা করার কথা ছিল বিজেপি সভাপতি অমিত শাহর। কিন্তু যাদবপুরের সভার অনুমতি দেয়নি রাজ্যটির প্রশাসন।

এ ঘটনায় রাজ্যটির মুখ্যমন্ত্রী ও তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ওপর চটেছেন তিনি। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার জয়নগরের সভা থেকে পশ্চিমবঙ্গ প্রশাসনকে চ্যালেঞ্জ করেছেন বিজেপি সভাপতি।

মমতাকে হুঁশিয়ারি দিয়ে তিনি বলেছেন, ‘মমতা দিদি আমি এই বাংলায় দাঁড়িয়ে জয় শ্রী রাম বলছি। আর কলকাতার দিকে রওনা হচ্ছি। আপনার যদি সাহস থাকে তাহলে আমায় গ্রেফতার করুন।’ খবর এনডিটিভির।

তিনি বলেন, ‘সোমবার আমার তিন জায়গায় সভা করার কথা ছিল। এক জায়গায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ভাইপো অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় ভোটে লড়ছেন। আমি সভা করলে ভাইপো হেরে যেতে পারেন বলে মমতা ভয় পেয়েছেন। তাই আমার সভার অনুমতি বাতিল করে দিয়েছেন তিনি।’

এ ঘটনায় বিজেপি নির্বাচন কমিশনকে পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে আহ্বান জানিয়েছে।

ভোটের মাঠে কিছুদিন থেকেই তৃণমূলকে আক্রমণ করছে বিজেপি নেতারা।

রোববার পশ্চিমবঙ্গে এসে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী মুক্তার আব্বাস নকভি তৃণমূলকে কটাক্ষ করেন। তিনি বলেন, দেশের একজন স্থায়ী প্রধানমন্ত্রী প্রয়োজন। চুক্তির ভিত্তিতে প্রধানমন্ত্রীর আসনে বসবেন এমন কাউকে দেশের দরকার নেই।

পাশাপাশি ভোটে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে তৃণমূলকে আক্রমণ করেন তিনি।

প্রায় একই সময়ে দিল্লিতে আরেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী প্রকাশ জাভড়েকরের নেতৃত্বে নির্বাচন কমিশনের দ্বারস্থ হয় বিজেপির এক প্রতিনিধি দল। তাদের অভিযোগ, পশ্চিমবঙ্গে নির্বাচনে কারচুপি করেছে তৃণমূল।

তৃণমূলের বিরুদ্ধে কারচুপির অভিযোগ নিয়ে কমিশনের প্রতিনিধিদের সঙ্গে দেখা করেন বিজেপি নেতারা।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

Close