রাস্তায় ধান ছিটিয়ে ন্যায্য মূল্য দাবি রাবি শিক্ষার্থীদের

রাবি প্রতিনিধি : কৃষকের উৎপাদিত ধানের ন্যায্য মূল্য দিতে এবং ধানের দাম বৃদ্ধির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষার্থীরা।

বুধবার দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় গ্রন্থাগারের সামনের রাস্তায় ধান ছিটিয়ে তারা এ কর্মসূচি পালন করেন।

মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, উৎপাদিত ধানের ন্যায্য মূল্য না পেয়ে টাঙ্গাইলে ধানের ক্ষেতে আগুন লাগিয়েছে এক কৃষক; যা কৃষি প্রধান বাংলাদেশের জন্য লজ্জার। এক মণ ধান উৎপাদনে কৃষক যে পরিমাণ খরচ করেন বিক্রি করে মূলধনও ফেরত পাননা তারা। কৃষকরা এ ভর্তুকি কোথায় পাবে? পুঁজিবাদীরা ব্যাংক ঋণ মওকুফ পাচ্ছে কিন্তু কৃষকরা তাদের ভর্তুকি পাচ্ছে না। অথচ এই পুঁজিবাদী, শাসকগোষ্ঠী, সরকারের আমলাদের বাড়ি-গাড়ি সব হয়েছে কৃষকের ট্যাক্সের টাকায়।

তারা আরও বলেন, আজকে ধানের যে দরপতন এর জন্য এক শ্রেণির সিন্ডিকেট দায়ী। সরকার এবছর ২৬ টাকা কেজি দরে ধানের দাম নির্ধারণ করেছে কিন্তু ব্যবসায়ীরা কৃষকের কাছ থেকে ১২ থেকে ১৪ টাকা কেজি দরে কিনছে; তারাই আবার সরকারের কাছে ২৬ টাকায় বিক্রি করছে। সিন্ডিকেট ব্যবসায়ীদের সম্পদের পাহাড় তৈরি হচ্ছে আর রাস্তায় বসছে কৃষকরা।

মানববন্ধনে শিক্ষার্থীদের হাতে ‘জিডিপি নয় ধানের দাম চাই, শিল্পপতি যদি তার পণ্যের দাম ঠিক করে তবে কৃষক কেন তার ফসলের দাম ঠিক করতে পারবে না? ধানের দাম কমে, চালের দাম বাড়ে কেন? কৃষি মেরে কৃষক মেরে উন্নয়ন মানি না, কৃষক যদি না করে ধান চাষ দেখব শাসকগোষ্ঠী কি খায়, আমরা চাষা ধানের ন্যায্য মূল্য চাই ইত্যাদি প্ল্যাকার্ড দেখা যায়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী ইব্রাহিম খলিলের সঞ্চালনায় এসময় বক্তব্য দেন- আব্দুল মজিদ অন্তর, সুমন মোড়ল, মাসুদ রানা, নুসরাত জাহান আভা, মহাব্বত হোসেন মিলন, মেহেদী হাসান, তানভীর খন্দকার, আব্দুল্লাহ নীল, মাহমুদ সাকী প্রমুখ। মানববন্ধনে অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী অংশ নেন।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

Close