যাত্রা শুরু করলো বাংলাদেশ হিয়ারিং কেয়ার এন্ড স্পিচ থেরাপি সেন্টার

এবং ডেস্ক : শ্রবণশক্তিকে দৃঢ় এবং বাকশক্তি স্বাভাবিক করতে যাত্রা শুরু করলো বাংলাদেশ হিয়ারিং কেয়ার এন্ড স্পিচ থেরাপি সেন্টার।

সোমবার রাজধানীর ধানমন্ডিতে অবস্থিত হ্যাপী আর্কেড শপিং মলের ২য় তলায় (সিটি কলেজ সংলগ্ন) স্থানীয় কাউন্সিলর জাকির হোসেন স্বপন এই থেরাপি সেন্টারের উদ্বোধন করেন।

এসময় তিনি বলেন, এই হিয়ারিং এন্ড স্পিচ থেরাপি সেন্টারে আগত ধানমন্ডির বাসিন্দাদের তালিকা প্রণয়ন করে দিবেন। আমরা সরকারের কাছ থেকে প্রতিবন্ধী ভাতার ব্যবস্থা করে দিবো।

উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ হিয়ারিং কেয়ার এন্ড স্পিচ থেরাপি সেন্টারের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ফারহানা শারমিন তানফি বলেন, দেশে এমন শিশুদের জন্মের হার ১৮.৫℅। যদিও আন্তর্জাতিক পরিমাণ থেকে আমাদের দেশে এই হার কিছুটা কম।

বিশ্বের অন্যান্য দেশে এই হার ২০℅ তে গিয়েও পৌছায়।

তিনি আরও বলেন, প্রসবকালীন সময়ে নবজাতকের অক্সিজেনের অভাব, প্রসবের জন্য অতিরিক্ত সময়ের অপেক্ষা করা, বংশগত সূত্র এবং গর্ভাবস্থায় মায়ের হামসহ বিভিন্ন ভাইরাসের কারণে শিশুরা এমনসব সমস্যা নিয়ে জন্মগ্রহণ করে।

উন্নত চিকিৎসা পেলে এই সমস্যা থেকে পরিত্রাণ পাওয়া সম্ভব উল্লেখ করে ফারহানা শারমিন বলেন, হিয়ারিং সেল ড্যামেজের ওপর নির্ভর করে শিশুদের চিকিৎসা। তবে নিয়মিত চিকিৎসা এবং থেরাপির মাধ্যমে এই সমস্যা কাটিয়ে ওঠা সম্ভব।

অনুষ্ঠানে জানানো হয়, শ্রবণশক্তি দৃঢ় করার পাশাপাশি এখানে ব্যতিক্রমধর্মী শিশুদের গন্ধ, স্বাদসহ নানা ধরনের অনুভূতি স্বাভাবিক করতে অকুপেশনাল এন্ড সেন্সর ইন্ট্রিগেশন থেরাপি, ফলিত আচরণ বিশ্লেষণ থেরাপির ব্যবস্থা রয়েছে।

যার মাধ্যমে অটিজম, বুদ্ধিপ্রতিবন্ধী, ডাউন সিন্ড্রোমে আক্রান্ত, অতিচঞ্চলতা বা অমনোযোগিতার বিকৃতি, মস্তিষ্কে পক্ষাঘাতগ্রস্ত (সেরেব্রাল পালসি) বাচ্চাদের প্রথাগত এবং প্রশাসনিক শিক্ষা প্রদান করা, ক্রিয়াশীল এবং স্বাভাবিক করার জন্য থেরাপি প্রদান করা হয়।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

Close