বেকার হোস্টেলে বঙ্গবন্ধুর আবক্ষ ভাস্কর্য পুনঃস্থাপন

এবং ডেস্ক : কলকাতার মৌলানা আজাদ কলেজের বেকার হোস্টেলে পুনঃস্থাপিত হলো বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আবক্ষ ভাস্কর্য।

কলকাতার মৌলানা আজাদ কলেজের বেকার হোস্টেলে পুনঃস্থাপিত হলো বাংলাদেশের জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আবক্ষ ভাস্কর্য। কলেজ জীবনে ব্যবহৃত ২৩ ও ২৪ নম্বর কক্ষের বাইরে থাকা ভাস্কর্যটি শনিবার উদ্বোধন করেন বাংলাদেশের পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় (এলজিআরডি) মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন পশ্চিমবঙ্গের বিপর্যয় মোকাবেলামন্ত্রী জাবেদ খান। তাজুল ইসলাম বলেন, আগের ভাস্কর্যটির সঙ্গে বঙ্গবন্ধু চেহারার মিল ছিল না। তাই দীর্ঘদিনের দাবি ছিল ভাস্কর্যটি বদল করা হোক। এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গেও আমার কথা হয়। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই ভাস্কর্যটি পুনঃস্থাপন করা হয়েছে।

জাবেদ খান বলেন, পশ্চিমবঙ্গের সঙ্গে বাংলাদেশের গভীর সম্পর্ক। সেই সম্পর্ক বজায় রাখতে এ উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় সবসময়ই বাংলাদেশের সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রাখতে চান।

সেখান থেকে দুপুর ৩টার দিকে পাঁচ সদস্যের একটি প্রতিনিধি দল নিয়ে ধর্মতলায় কলকাতা পৌরসভা ভবনে যান মন্ত্রী তাজুল ইসলাম। কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম ও ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষের সঙ্গে ডেঙ্গুবাহিত এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে কলকাতা শহর কীভাবে কাজ করছে তা নিয়ে মতবিনিময় করেন তারা। কলকাতা পৌরসভা ডেঙ্গু প্রতিরোধে বিশেষ সাফল্য পাওয়ায় বিষয়টি জানতেই এ বৈঠকটি হয়। ঘণ্টাব্যাপী চলা বৈঠকে কলকাতা পৌরসভার দুই মেয়র ডেঙ্গু প্রতিরোধে কী কী পদক্ষেপ নিয়েছেন বাংলাদেশের প্রতিনিধি দলটির কাছে তা সবিস্তারে তুলে ধরেন।

এ সময় এলজিআরডি মন্ত্রী তাজুল ইসলাম বলেন, কলকাতা পৌরসভা যেভাবে এডিস মশা নির্মূলে সফলতা পেয়েছে, সেই অভিজ্ঞতা কাজে লাগিয়ে বাংলাদেশেও তা বাস্তবায়নের চেষ্টা করা হবে।

এ সময় মেয়র ফিরহাদ হাকিম বলেন, মাঝখানে শুধু একটা কাঁটাতারের বেড়া। কিন্তু দুই দেশের সম্পর্কটা চিরদিনের। তাই কলকাতার মানুষের পাশাপাশি বাংলাদেশের মানুষও যেন সুস্থ থাকে সে জন্য ডেঙ্গু মোকাবেলায় বাংলাদেশকে সবরকম সহায়তা দেওয়া হবে।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

Close