সরকার প্রতারক: ফখরুল

এবং ডেস্ক : বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ক্ষমতাসীনরা বর্গীদের মতো দেশের সব কিছু লুট করে নিচ্ছে। এই সরকারটা প্রতারক সরকার।

মঙ্গলবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ন্যাশানালিস্ট রিসার্চ সেন্টারের উদ্যোগে ‘আমার দেশ আমার শিল্প’ শীর্ষক আলোচনা সভায় তিনি এ কথা বলেন। অনুষ্ঠানে চামড়া শিল্পের ওপর মূল প্রবন্ধ পাঠ করেন টিএস আইয়ুব।

মির্জা ফখরুল বলেন, এই সরকার হয়ে গেছে এখন- ফর দ্য লুটেরাজ, বাই দ্য লুটেরাজ, অফ দ্য লুটেরাজ। এখানে লুট ছাড়া আর কিছু নেই। একেবারে তৃণমূল থেকে শুরু করে উপর পর্যন্ত শুধু লুট চলছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, টিআর-কাবিখা থেকে শুরু করে মেগা প্রজেক্ট পর্যন্ত সব ভাগ-বাটোয়ারা চলছে। সেখানে লুট ছাড়া কিছু নাই। এ অবস্থা থেকে উত্তরণে সকলকে ঐক্যবদ্ধ হতে হবে। দেশকে বাঁচাতে হলে গণতন্ত্রকে ফিরিয়ে আনতে হবে। দেশকে বাঁচাতে হলে দেশপ্রেমিক নেতাকে ফিরিয়ে আনতে হবে। খালেদা জিয়াকে মুক্ত করে নিয়ে আসতে হবে।

চামড়া শিল্পের প্রসঙ্গে তিনি বলেন, দেশের চামড়া শিল্প এখন একটা চরম বিপাকের মধ্যে পড়েছে। কোরাবানির ঈদে এই চামড়াকে কেন্দ্র করে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। বিশেষ করে ধর্মীয় প্রতিষ্ঠানগুলো, এতিমখানাগুলো সমস্যায় পড়েছে বেশি। যে এতিমখানাতে এই চামড়ায় আয় থেকে বছরের অর্ধেক সময় তাদের সংস্থান হতো অত্যন্ত সুচারুরূপে কৌশলের মাধ্যমে কারসাজি করে চামড়ার দাম না দিয়ে চামড়াকে নষ্ট করে তারা এই শিল্পকে ধ্বংস করে দিয়েছে।

বিএনপি মহাসচিব বলেন, চামড়া শিল্প ধ্বংস করার ষড়যন্ত্রের সঙ্গে আন্তর্জাতিক ষড়যন্ত্রও কাজ করছে। এর মধ্যে পাশের দেশের সীমান্ত বেনাপোলের এক’শ কিলোমিটারের মধ্যে ‘বামতলা’ নামে একটি জায়গায় একটা ছোট চামড়া নগরী আছে। ইদানিংকালে সেই নগরীকে বড়ভাবে পরিণত করা হচ্ছে এবং সেখানে ৮০ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হয়েছে। ইতালি থেকে কয়েকজন বিনিয়োগকারীকে সেখানে নিয়ে আসা হয়েছে এবং আধুনিক লেদার সিটি গড়ে তোলার জন্য ব্যবস্থ নেওয়া হয়েছে। সেটা এই লেদার দিয়েই শুরু হচ্ছে।

সাভারে ট্যানারিগুলোর সরকারের কখনোই সদিচ্ছা ছিলো না মন্তব্য করে তিনি বলেন, ট্যানারি শিল্প, লেদার শিল্প আজকে মুখ থুবড়ে পড়ে যাচ্ছে। এর ফলে দেশের যে সম্ভাবনা রয়েছে তা থেকে পিছিয়ে পড়ছি।

সংগঠনের পরিচালক বাবুল তালুকদারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান বরকত উল্লাহ বুলু, শামসুজ্জামান দুদু ও যুগ্ম মহাসচিব সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল বক্তব্য দেন।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

আরো দেখুন

Close
Close