কোচকে না বলেই ছুটি কাটালেন জহুরুল

এবং ডেস্ক : জাতীয় দল নির্বাচকরা এখন ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। আফগানিস্তানের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টের দল ছাড়াও প্রস্তুতি ম্যাচের জন্যও স্কোয়াড করতে হচ্ছে তাদের। সোমবার বিসিবি একাদশের স্কোয়াড চূড়ান্তও করে ফেলেছেন দুই নির্বাচক। বিসিবি ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের কাছে সে তালিকাও হস্তান্তর করেছেন তারা। প্র্যাকটিস ম্যাচের স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়া কয়েকজন ক্রিকেটারকে প্র্যাকটিস করাতে বিসিবির কোচ ওসমান গনিকে নির্দেশনাও দিলেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

এ ছাড়াও জাতীয় দলের ক্যাম্পে দু’দিনের একটি ম্যাচের জন্য লাল-সবুজ দল বানাতে হবে তাদের। চোখ রাখতে হচ্ছে বিসিবি ইমার্জিং দলের পারফরম্যান্সের ওপরও। এই কাজগুলো প্রতিদিনই একটু একটু করে এগিয়ে রাখতে মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে মিটিং করেন দুই নির্বাচক নান্নু ও হাবিবুল বাশার। কাজের ফাঁকে সোমবার জাতীয় দলের ক্যাম্পে খেলোয়াড়দের সম্পর্কে খোঁজ নিতে গিয়ে তারা জানতে পারলেন, কাউকে কিছু না বলে অনুশীলনে আসেননি জহুরুল ইসলাম। দীর্ঘদিন পর ক্যাম্পে ডাক পাওয়া এই ওপেনিং ব্যাটসম্যানের দায়িত্বজ্ঞান নিয়ে তাই প্রশ্ন তোলেন প্রধান নির্বাচক। কোমরে ব্যথার কারণে রোববার ক্যাম্পে রিপোর্ট করলেও অনুশীলন করেননি জহুরুল।

সোমবার ফোনে ফিজিও বায়েজিদুল ইসলামকে জানিয়ে দেন, বাসায় থেকেই বিশ্রাম করবেন। বায়েজিদের কাছ থেকেই বিসিবি ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের কর্মকর্তারা জহুরুলের ছুটির ব্যাপারে জানতে পারেন। এ নিয়ে জহুরুলের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন, ‘যেহেতু কোমরে হালকা ব্যথা আছে তাই দুই দিন বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে। মঙ্গলবার মাঠে যাবো।’ ছুটি নেওয়ার ক্ষেত্রে যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করেছেন কি-না জানতে চাইলে চুপ থাকেন এই ব্যাটসম্যান। অবশ্য পরে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নুর সঙ্গে ফোনে এ নিয়ে কথা বলেছেন তিনি। অবশ্য এতে নান্নুর মন গলেনি। বিষয়টি ঠিকই নোট করে রেখেছেন তিনি।

ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ভালো খেলে বিসিবি নির্বাচকদের রাডারে আসেন জহুরুল। বিসিবি একাদশের হয়ে ভারতে চারদিনের টুর্নামেন্টে খেলেছেন তিনি। ওপেনিংয়ে সাদমান ইসলামের সঙ্গে জুটি বেঁধে ভালোই খেলেছেন তিনি। তামিম ইকবাল ছুটি নেওয়ায় টেস্ট দলে ফেরার একটা সম্ভাবনাও তৈরি হয়েছে তার জন্য। সেখানে এভাবে নিয়ম ভাঙায় একটু হলেও নির্বাচকদের কাছ থেকে দূরে সরে গেলেন হয়তো।

জহুরুল ছাড়া ক্যাম্পের বাকি সবাই অনুশীলন করেছেন। টানা দুই দিন ব্যাটিং সেশন করা সাকিব আল হাসান বল হাতে তুলে নেন গতকাল। মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামের সেন্টার উইকেটে বোলিং সেশন করেন বিশ্বসেরা এ অলরাউন্ডার। পেস বোলারদের নিয়ে সেন্টার উইকেটে কাজ করেন চার্ল ল্যাঙ্গেভেল্ট। রাসেল ডমিঙ্গো শেরেবাংলার ইনডোরের পাশের নেট সেশন করান ব্যাটসম্যানদের। স্কিল ট্রেনিং শেষে ফিটনেস বাড়াতে রানিং করতে হয় ক্রিকেটারদের।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

আরো দেখুন

Close
Close