লেখক আশিকুল কায়েসের ওপর হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন

এবং ডেস্ক : বাংলাদেশ তরুণ লেখক পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি আশিকুল কায়েস ও তার বাবার ওপর সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছেন সংগঠনটির ঢাকা জেলার শাখার নেতারা।

শনিবার সকালে জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এ মানববন্ধন থেকে হামলার তীব্র নিন্দা জানিয়ে এর সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করা হয়।

সভাপতির বক্তব্যে সংগঠনটির প্রধান উপদেষ্টা মোস্তফা আলমগীর লিটন হামলার সঙ্গে জড়িতদের শনাক্ত করে দ্রুত ব্যবস্থা নিতে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় ও মাগুরা জেলা প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করে বলেন, আগামী ২১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা না হলে সংগঠনের পক্ষ থেকে সারাদেশে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।

উপদেষ্টা অ্যাডভোকেট ফিরোজ আলম বলেন, একটা শক্তি সবসময় এ দেশের সংস্কৃতিকে ধ্বংসের জন্য উঠেপড়ে লেগেছে। এ অপশক্তিকে মাথাচাড়া দিয়ে উঠতে দেওয়া যাবে না। তাদের বিরুদ্ধে আমাদের লড়তে হবে।

ঢাকা জেলা তরুণ লেখক পরিষদের সাধারণ সম্পাদক উম্মে হালিম মেঘলা বলেন, লেখকরা তাদের লেখনীর মাধ্যমে দেশের বিভিন্ন বিষয়ে কথা বলে দেশের সেবা করে থাকেন। আশিকুলও তেমন একজন লেখক। তার এই সৃজনশীল প্রচেষ্টাকে থামানোর জন্যই হামলা করা হয়েছে। তিনি হামলার সঙ্গে জড়িতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেন। মানববন্ধনে আরও বক্তব্য দেন সংগঠনের সদস্য নঈম আহমেদ, আবদুল হালিম প্রমুখ।

৮ সেপ্টেম্বর মাগুরা সদর উপজেলার রাধাডাঙ্গা গ্রামে ফজরের নামাজ পড়ে মসজিদ থেকে বের হওয়ার পর সন্ত্রাসীরা লেখক আশিকুল কায়েস ও তার বাবার ওপর অতর্কিত হামলা করে। স্থানীয়রা তাদের মুমূর্ষু অবস্থায় মাগুরা উপজেলা সদর হাসপাতালে নিয়ে যান। আশিকুল কায়েসকে সেখানে রাখা হলেও তার বাবার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় প্রথমে তাকে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল এবং পরে রাজধানীর চক্ষু হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তিনি বাঁ চোখে গুরুতর আঘাত পেয়েছেন।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

Close