চারদিনের অনুশীলনে তিনদিনই অনুপস্থিত সাকিব

এবং ডেস্ক : ভারত সফরের জন্য আগামী বুধবার দেশ ছাড়বে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। অথচ অনুশীলনই করছেন না বাংলাদশ জাতীয় দলের টেস্ট ও টি-২০ অধিনায়ক সাকিব আল হাসান। শুক্রবার জাতীয় দলের অনুশীলন ক্যাম্প শুরু হলেও তিনি মাত্র একদিন অনুশীলন করেছেন। আসেননি সোমবারের অনুশীলনেও।

সাকিব আল হাসান ভারত সফরে যাবেন কি-না তা নিয়ে প্রশ্ন দেখা দিয়েছে। বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন দাবি করেছেন, তিনি হলফ করে বলতে পারেন সাকিবসহ কিছু ক্রিকেটার ভারত সফরে যাবেন না। বাংলাদেশ দলের অধিনায়ক অনুশীলনে না আসায় সেই সম্ভাবনার পালে আরও জোরালো ঢেউ লেগেছে।

বাংলাদেশের স্পিন বোলিং কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টরি শুক্রবার প্রথমবার দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন। অথচ ওই দিন দলের অধিনায়ক এবং বাংলাদেশের সেরা স্পিন ভরসা সাকিব অনুশীলনে ছিলেন না। জাতীয় দলের প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গোর থেকে তিনি ছুটি নিয়েছিলেন বলে জানা যায়। ধর্মঘট প্রত্যাহার করে খেলায় ফেরা অন্য ক্রিকেটাররা অনুশীলনে আসলেও সাকিব ক্যাম্পে যোগ না দেওয়ায় বিভিন্ন গুঞ্জন ওঠে।

তবে শনিবারের অনুশীলনে যোগ দেন সাকিব। তবে তারটা অর্ধ-বেলার অনুশীলন ছিল বলে জানা যায়। এদিন অবশ্য প্রধান কোচ রাসেল ডমিঙ্গো এবং স্পিন বোলিং কোচ ড্যানিয়েল ভেট্টরির সঙ্গে বেশ ফুরফুরে মেজাজে দেখা যায় অধিনায়ককে। তবে রোববারের অনুশীলন আবার মিস করেন দলের সিনিয়র এই ক্রিকেটার। সাকিব রোববার অনুশীলন না করে ইউনিসেফের শুভেচ্ছাদূত হিসেবে তাদের একটি অনুষ্ঠানে যোগ দেন।

এরপর সোমবারও অনুশীলনে আসেননি দেশসেরা এই তারকা ক্রিকেটার। খেলেননি দ্বিতীয় প্রস্তুতি ম্যাচ। এর আগে প্রথমদিন সাকিবের অনুশীলন না করা নিয়ে জানা যায়, তিনি অসুস্থ ছিলেন। তবে রোববার তার অনুশীলন না করার বিষয়ে কারণ দর্শাতে বলেছে বোর্ড। সোমবার মিরপুরে ক্রিকেটারদের অনুশীলন দেখতে আসেন বোর্ড সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। সাকিব বোর্ডকে তার না থাকার বিষয়ে কিছু বলেছেন কি-না জানতে চান পাপন। ধর্মঘট প্রত্যাহারের পর একটি টেলিকো কোম্পানির সঙ্গে সাকিব চুক্তি করায় বোর্ডের সঙ্গে তার সম্পর্ক উল্টো রথে চলছে।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

Close