ই-পাসপোর্ট বিতরণ শুরু ২৮ নভেম্বর: পররাষ্ট্রমন্ত্রীএ

এবং ডেস্ক : আগামী ২৮ নভেম্বর থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ই-পাসপোর্ট বিতরণ শুরু হবে বলে জানিয়েছেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন।

বৃহস্পতিবার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে নিজের কার্যালয়ে সাংবাদিকদের এক ব্রিফিংয়ে তিনি এ কথা জানান। এছাড়া সৌদি আরবে নারী গৃহকর্মী পাঠানো বন্ধের কোনো পরিকল্পনা এ মুহূর্তে সরকারের নেই বলেও জানান তিনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী জানান, নাগরিকদের পাসপোর্ট দেওয়ার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ তারিখ নিশ্চিত করেছে। এ পাসপোর্টের মেয়াদ হবে ১০ বছর। এর ফলে বিশেষ করে প্রবাসীরা পাঁচ বছর পর পর পাসপোর্ট নবায়নের ঝামেলা থেকে মুক্ত থাকবেন।

এর আগে বহির্গমন ও পাসপোর্ট অধিদপ্তর গত জুলাইয়ে ইলেকট্রনিক পাসপোর্ট বা ই-পাসপোর্ট বিতরণ করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছিল। তবে সেই তারিখ থেকে ই-পাসপোর্ট বিতরণ শুরু সম্ভব হয়নি।

সম্প্রতি সৌদি আরব থেকে বর্বর নির্যাতনের শিকার হয়ে একের পর এক বাংলাদেশি নারীদের ফিরে আসা, নির্যাতন সইতে না পেরে আত্মহত্যার ঘটনা ঘটেছে– এ বিষয়টি উদাহরণ হিসেবে তুলে ধরে করা এক প্রশ্নের জবাবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, ‘নারীদের আমরা পিছিয়ে রাখতে চাই না। নারী-পুরুষের অধিকার সমান। এ কারণে কোনো নারী সৌদি আরবে যেতে চাইলে আমরা বাধা দিতে চাই না।’

সৌদিতে নারীদের নির্যাতিত ও ধর্ষিত হওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, অন্দরমহলে কাজ করতে গিয়ে কেউ যদি কোনো দুর্ঘটনার শিকার হন, তারা অভিযোগ করলে তা সঙ্গে সঙ্গে সৌদি কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়। এক্ষেত্রে সৌদি সরকারও দ্রুত ব্যবস্থা নেয়। কিন্তু অনেকে অভিযোগই করেন না। নির্যাতিতদের জন্য সেফ হোম করা হয়েছে বলেও তিনি জানান।

সৌদি আরবে বাংলাদেশ দূতাবাস এবং কনসাল জেনারেলের অফিসে অভিযোগ শোনা হয় না– ভুক্তভোগীদের এমন অভিযোগের বিষয়ে দৃষ্টি আকর্ষণ করলে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ অভিযোগ সঠিক নয়। সৌদি আরবে দূতাবাস আছে, দূতাবাসের কর্মকর্তারা আছেন। তারা অভিযোগ পেলে দ্রুত ব্যবস্থা নেন। তবে অনেকে সে দেশে থাকতে অভিযোগ করেন না, অভিযোগ জানান দেশে এসে।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

Close