ঢাকা সিটির ভোট পেছানো নিয়ে আদালতের দিকে তাকিয়ে ইসি

এবং ডেস্ক : স্বরস্বতী পূজার কারণে ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন পেছানো হবে কিনা সে বিষয়ে উচ্চ আদালতের রায়ের দিকে তাকিয়ে আছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

আদালতের রায় অনুযায়ীই ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে রোববার কমিশনের এক অনানুষ্ঠানিক সভায় মত দেন কমিশনাররা। সভায় নির্বাচন কমিশনের আইন শাখার কর্মকর্তাদের ডেকে এ বিষয়ে করা রিটের সর্বশেষ অবস্থা জানতে নির্দেশনা দেয়া হয়। ইসি সূত্রে এ তথ্য জানা গেছে।

সভা শেষে নির্বাচন কমিশনার রফিকুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, আমরা ৩০ জানুয়ারি ঢাকার দুই সিটিতে ভোটগ্রহণের সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আদালতে একটি রিট আবেদন হয়েছে। আদালত কোনো নির্দেশনা দিলে তা আমরা সেই অনুযায়ী পদক্ষেপ নেব।

আরও জানা গেছে, রোববারের বৈঠকে আগামী ২ মার্চ ভোটার দিবস উদযাপন বিষয়ে আলোচনা হয়। পরে ইসির আইন শাখার কর্মকর্তাদের ডেকে রিট আবেদনের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে জানতে চান। সভায় কর্মকর্তারা জানান, আদালত থেকে এখনও কোনো রায় পাওয়া যায়নি।

সরস্বতী পূজার কারণে ঢাকার দুই সিটিতে ভোটের তারিখ পেছাতে কয়েকটি সংগঠন নির্বাচন কমিশনে আবেদন জানায়। এ ছাড়া উচ্চ আদালতে একটি রিটও করা হয়েছে। সর্বশেষ ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের জগন্নাথ হলের প্রাধ্যক্ষ ঢাকা দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের রিটার্নিং কর্মকর্তার দফতরে একটি আবেদন করেন।

নির্বাচনের দিন পেছানোর রিট শুনানি সোমবার: ঢাকার দুই সিটির নির্বাচন পেছানোর নির্দেশনা চেয়ে করা রিট নতুন বেঞ্চে উপস্থাপন করা হয়েছে। আবেদনটি রোববার বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি মো. খায়রুল আলমের হাইকোর্ট বেঞ্চে উপস্থাপন করা হয়। আদালতে আবেদনের পক্ষে ছিলেন আইনজীবী অশোক ঘোষ। রাষ্ট্রপক্ষে ছিলেন ডেপুটি অ্যাটির্নি জেনারেল নূর উস সাদিক।

পরে অশোক ঘোষ বলেন, কার্যতালিকায় বিচারপতি মঈনুল ইসলাম চৌধুরীর নেতৃত্বাধীন বেঞ্চে রিট আবেদনটি ৩৮ নম্বর ক্রমিকে ছিল। কিন্তু বিষয়টি এখতিয়ার বহির্ভূ‚ত হওয়ায় আদালত অন্য বেঞ্চে নিতে বলেন। এরপর বিচারপতি জেবিএম হাসান ও বিচারপতি খায়রুল আলমের বেঞ্চে উপস্থাপন করা হয়। ডেপুটি অ্যাটির্নি জেনারেল নূর উস সাদিক বলেন, আবেদনের ওপর সোমবার দুপুর ২টায় শুনানি হবে।

ভোটের তারিখ পরিবর্তনের দাবিতে ঢাবিতে মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশ: ঢাকার দুই সিটির নির্বাচনের তারিখ পরিবর্তন করে পুনঃতফসিল ঘোষণার দাবি জানিয়েছে বাংলাদেশ সাধারণ শিক্ষার্থী ঐক্য পরিষদ। অন্যথায় কঠোর আন্দোলনের হুশিয়ারি দিয়েছে বাংলাদেশ হিন্দু, বৌদ্ধ, খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের এ অঙ্গ সংগঠন। রোববার বিকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে এক মানববন্ধন ও প্রতিবাদ কর্মসূচি থেকে এ দাবি জানায় সংগঠনটি।

ট্যাগ্স
আরো দেখুন

এই সম্মন্ধীয় সংবাদ

Leave a Reply

Close